গৃহসজ্জালাইফস্টাইল

ঈদের দিনে কিভাবে সাজাবেন টেবিল?

ঈদের দিনে কিভাবে টেবিল সাজাবেন?

ঈদের দিনে সবাই তার ঘরটাকে মন মতো সাজাতে চাই। তার মাঝে ঈদের দিনে টেবিল সাজানো ও অন্যতম। ঈদের দিনে কিভাবে টেবিল সাজাবে সেই নিয়ে অনেকের মাঝেই চিন্তা শুরু হয়েছে। ঈদের দিনে টেবিল সাজান থিম অনুযায়ী। থিম অনুযায়ী টেবিল সাজাতে হলে রং ও সাজানোর বিষয়ের উপর নজর দিতে হবে। আবার আবহাওয়ার প্রতি ও নজর রেখে টেবিল সাজাতে হবে।

মূলত ঈদের দিনে এমনভাবে টেবিল সাজাতে হবে যাতে করে টেবিল খুব বেশি গাঢ় রং না লাগে। দেখতেও চোখে আরাম লাগে। ঈদের দিনে বিভিন্নভাবে টেবিল সাজানো যায়। টেবিলের মাঝে একটি রানার দেওয়া যেতে পারে। আবার বড় কভার দিয়েও টেবিল সাজানো যায়। টেবিলে কিছু ফুল রাখলে দেখতে খুব সুন্দর লাগে। দামি ফুল না রেখে কিছু কম দামী ফুল ও রাখতে পারেন। মূলত হাতের নাগালে পাওয়া যায় এমন জিনিস দিয়ে সবসময় টেবিল সাজানো উচিত। টেবিলে মোমবাতি রাখা যেতে পারে। দিনের বেলায় কিছু মোমবাতি জ্বালিয়ে রাখলে মৌমাছি দূর হয়। আপনার ছোট্ট সোনামণির ঘরটি কেমন হবে?

তবে টেবিলে এমন জিনিস রাখা যাবে না যাতে বিরক্তি সৃষ্টি হতে পারে। যদি বেশি জিনিসপত্রের প্রয়োজন হয় তাহলে মূল টেবিলের পাশে একটি ছোট টেবিল রাখা যেতে পারে। এটাতে মিষ্টিজাতীয় খাদ্য, চটপটি ও চা সাজিয়ে রাখা যেতে পারে। এসব খাবার মূল খাবার থেকে একটু পাশে সরিয়ে রাখলে সবাই নিজের ইচ্ছামতো নিয়ে খেতে পারে। তাহলে মূল টেবিলে জিনিসপত্রের ঠাসাঠাসি হবে না। সবাই সুন্দরমতো আরামে খেতে পারবে। ঈদের অতিথি আপ্যায়নে কাশ্মিরী পোলাও ও রায়তা

ঈদের দিনে সকালে কিভাবে টেবিল সাজাবেন?

সুসজ্জিত টেবিল

সকালে টেবিলে রানার বা জিনিসপত্র যাই রাখা হোক না কেন তা যেন একটু স্নিগ্ধ হয়। গোলাপী, সাদা, হালকা হলুদ, আকাশী ইত্যাদি রং ব্যবহার করা ভালো। প্যাস্টেল কালার রাখা যেতে পারে টেবিলে। সাথে ফুলদানিতে সাদা লিলি অথবা অপরাজিতা রাখা যেতে পারে। টেবিলে সাদা রঙয়ের সাথে গোলাপি বা আকাশি রঙয়ের মিশ্রণ থাকতে পারে। তাহলে খাবার টেবিলে বৈচিত্র্য আসবে। টেবিলের এক কোণায় রাখা যেতে পারে কিছু মোমবাতি। আপনার শোবার ঘর কেমন হবে?

ঈদের দিন দুপুরে কিভাবে টেবিল সাজাবেন?

ঈদের দিন সকালে যদি রানার ব্যবহার করা হয় তাহলে দুপুরে টেবিল কভার ব্যবহার করতে পারেন। দুপুরে ও টেবিল সাজাতে ব্যবহার করতে পারেন স্নিগ্ধ রং। সাদার সাথে বেগুনি, সবুজ, সোনালী বা রুপালি রঙয়ের মিশ্রণ রাখা যেতে পারে টেবিলে। প্যাস্টেল শেড দিয়ে যেকোন সময় টেবিল সাজানো যেতে পারে। তৈজসপত্র সাজাতে হলে সোনালী একটা আভা রাখতে পারেন। পরিবেশনপাত্রে খাবার পরিবেশন করতে হবে। তাহলে খাবারে বৈচিত্র্য আসবে এবং খাবার ও অনেক সময় ধরে ভালো থাকবে।

ঈদের খুশিতে হয়ে যাক মাটন রোস্ট

রাতে কিভাবে টেবিল সাজাবেন?

রাতে টেবিল সাজাতে হলে গাঢ় রং দিয়ে সাজাতে পারেন। সবুজ, বেগুনি, সোনালী, বাদামী ইত্যাদি রং দিয়ে টেবিল সাজাতে পারেন। দুপুরে টেবিল কভার ব্যবহার করলে রাতে টেবিলে রানার ব্যবহার করতে হবে। রাতে টেবিলে মোমবাতি জ্বলালে দেখতে খুব ভালো লাগবে। অল্প বয়সে কেন হার্ট অ্যাটাক হচ্ছে?

টেবিলে যা যা রাখা আবশ্যক-

খাবার টেবিল সাজানোর সময় অবশ্যই খাবার বাটি বা পরিবেশন পাত্রের পাশাপাশি হাফ প্লেট, ফুল প্লেট, কাটা চামচ, টেবিল চামচ, চা চামচ, ছুরি ও ন্যাপকিন রাখা উচিত। দুই ধরনের গ্লাস টেবিলে রাখা উচিত। একটাতে পানি ও অন্যটাতে শরবত খাওয়ার জন্য।

ঈদের দিনে খাবারে সর্তকতা

খাসির রেজালা

বর্ষায় ঘর আসবাবপত্রের যত্ন

ঘর হোক রঙ্গিন

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
error: Content is protected !!

Adblock Detected

Please turn off your Adblocker.