পুষ্টি পরামর্শ

কাঁচা কলার পুষ্টিগুণ

কাঁচা কলার পুষ্টিগুণ

পাকা কলা সবাই খেতে পছন্দ করে কিন্তু কাঁচা কলা অনেকেই পছন্দ করে না। কাঁচা কলার পুষ্টিগুণ ও উপকারিতা সম্পর্কে জানলে আজই কাঁচা কলা খেতে শুরু করবেন। কাঁচা কলাতে ভিটামিন, খনিজ লবণ ও শর্করা পাওয়া যায় খুব ভালো পরিমাণে। তাই নিয়মিত কাঁচা কলা খেলে শরীরের অনেক উপকার পাওয়া যায়। কাঁচা কলা ওজন নিয়ন্ত্রণে কাজ করে এবং কাঁচা কলা রোগ ব্যধি থেকে মুক্তি দেয়।

চলুন জেনে নিই কাঁচা কলা কিভাবে আমাদের শরীরের এতোসব উপকার করে-

১। কাঁচা কলা হৃতপিন্ডের স্বাস্থ্যের জন্য ভালো কাজ করে। এটি পটাশিয়ামের খুব ভালো উৎস। পটাশিয়াম এমন একটি খনিজ যা পেশিকে সংকুচিত করে ও হৃদপিন্ডের স্পন্দনে সাহায্য করে। কাঁচা কলা রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে।

২। কাঁচা কলা কিডনির সমস্যাতে কাজ করে। কাঁচা কলাতে পটাশিয়াম ও অন্যান্য ভিটামিন থাকে যা কিডনি সক্রিয় রাখতে সাহায্য করে।

৩। কাঁচা কলা অন্ত্রের ব্যাকটেরিয়া নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে। এটি শর্ট চেইন ফ্যাটি এসিডের উৎপাদন বাড়াতে সাহায্য করে। এটি হজমে সাহায্য করে। আলসারেটিভ কোলাইটিস ও অ্যান্টিবায়োটিক সম্পর্কিত ডায়রিয়া চিকিৎসা করতে কাঁচা কলা খাওয়ানো হয়।

৪। কাঁচা কলা উচ্চ ফাইবার কোলেস্টেরল ঠিক রাখতে সাহায্য করে। ফাইবার সমৃদ্ধ হওয়ায় এটি রক্তের শর্করা নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে।

কাঁচা কলা ও পাকা কলার মাঝে পার্থক্য হলো, সবুজ কলায় কার্বোহাইড্রেট প্রধানত স্টার্চের আকারে থাকে ও কাঁচা কলা পাকার সময় তা ধীরে ধীরে চিনিতে পরিণত হয়। তাই পাকা কলা বেশি মানুষ পছন্দ করে। কাঁচা কলা ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য খুব ভালো কাজ করে।

আরো পড়ুনঃ

শীতের সবজির গুণাগুণ

পুইশাকের পুষ্টিগুণ

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button