খাদ্য ও স্বাস্থ্যকথাখাদ্য টিপসপুষ্টি পরামর্শস্বাস্থ্য টিপস

ঘি যে কারণে খাওয়া উচিত

ঘি কেন খাবেন

প্রায় সবারই রান্না ঘরে ঘি থাকে। আমরা আমাদের মা, দাদিদের কাছে শুনে থাকি ঘি আমাদের রান্নাকে আরো বেশি সুস্বাদু করে তোলে। কিন্তু ঘি কি শুধুই রান্না সুস্বাদু করে? ঘি রান্নাকে সুস্বাদু করতে ব্যবহার করা হয়। পাশাপাশি ঘি আমাদের খাদ্যকে আরো পুষ্টিসমৃদ্ধ করে তোলে।

অনেকের মাঝেই একটা ভুল ধারণা আছে। ঘি খেলে ওজন বাড়ে এবং ঘি খেলে কোলেস্টেরল বেড়ে যায়। কিন্তু এই ধারণাটি সম্পূর্ণই ভুল। ঘি খেলে আমাদের ওজন কমে যায়, ত্বক ভালো থাকে, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বেড়ে যায়, হাড়ের শক্তি বৃদ্ধি পায় এবং ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি পায়। বাতের ব্যথা নির্মূলে উপযোগী খাবার

ঘি তে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন এ পাওয়া যায়। ঘি দুগ্ধজাত পণ্য হওয়ায় ঘি থেকে এলার্জি হওয়ার কোন সম্ভাবনা থাকে না।

ঘি একটি উপকারী খাদ্য এবং ঘি তে ভালো ফ্যাট পাওয়া গেলেও ঘি খাওয়ার একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ রয়েছে। প্রতিদিনের সকালের খাবারের সাথে মিশিয়ে ঘি খাওয়া যেতে পারে। খালি পায়ে সকালে হাটার উপকারিতা

একদিনে ১০ থেকে ১৫ গ্রাম ঘি খাওয়া যেতে পারে। বাচ্চারা দিনে ২ চা চামচ এর বেশি ঘি খেতে পারবে না। প্রাপ্তবয়স্ক ও গর্ভবতী মহিলারা দিনে ২-৩ চা চামচ ঘি খেতে পারে।

নিয়ম মেনে ঘি খাওয়া উচিত। বেশি ঘি খেলে হার্টের সমস্যা হতে পারে। উচ্চ রক্তচাপ, ডায়াবেটিস ও ওজনাধিক্যের সমস্যা থাকলে বেশি ঘি খাওয়া উচিত নয়। সুস্থ হাড়ের গঠনে যা করবেন

আরো পড়ুনঃ দুধ চা যেভাবে ওজন কমাতে সাহায্য করে

যেকারণে সকালে হার্টে অ্যাটাকের ঝুকি বেশি থাকে

এক দিনে কত কাপ কফি খাওয়া স্বাস্থ্যকর?

সন্ধ্যার পরে যেসব খাবার খাওয়া ঠিক নয়

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
error: Content is protected !!

Adblock Detected

Please turn off your Adblocker.