খাদ্য ও স্বাস্থ্যকথাখাদ্য টিপস

পানি পান করার সঠিক নিয়ম

খাবারের পরেই কেন জল খেতে বারন করা হয়ে থাকে?

খাবারের পরেই কেন জল খেতে বারন করা হয়ে থাকে?

আমরা পানি পান করার সঠিক নিয়ম না জেনেই পানি খাই। খাবারের পরেই জল খেতে বারন করার পেছনে কিছু বিজ্ঞানভিত্তিক যুক্তি আছে। খাওয়ার পরেই পানি খেলে তাতে কিছু জীবানু সৃষ্টি হতে পারে তার মধ্যে কলেরার জীবানু অন্যতম। এছাড়াও এতে করে বদহজম সমস্যা তৈরি হতে পারে ও গ্যাস্ট্রিক বাড়তে পারে। 

পানি পান করার সঠিক নিয়ম

পানি খাওয়ার সঠিক কয়েকটি নিয়ম —

১। ঘুম থেকে উঠে পানি খাওয়া
সকালে ঘুম থেকে উঠেই পানি এক গ্লাস পান করলে আমাদের শরীর থেকে ক্ষতিকর টক্সিক উপাদান বের হয়ে যায়। এর ফলে রোগভোগের আশঙ্কা অনেক কমে যায়। তাই আধুনিক  চিকিৎসকেরা ঘুম থেকে উঠে এক গ্লাস পানি পান করার পরামর্শ দেন। 

২। খাবার পরে পানি পান 
বিশেষজ্ঞদের মতে খাবার খাওয়ার কম করে অন্তত আধা ঘণ্টা পর পানি পান করা উচিত। এর পর দুই বা তিন ঘণ্টা পর ভালোমত পানি পান করা উচিত। খাবার সাথে সাথে পানি পান করলে হজমের জন্যে সহায়ক পাচক রসের কার্যক্ষমতা হ্রাস পায়। ফলে বদ হজমের মত সমস্যা দেখা দেয়। ফলে পেটে গ্যাস বা অম্বলের মতো সমস্যা তৈরি হয়।

৩। চুমুক দিয়ে পানি পান
বিশেষজ্ঞদের মতে পানি পান করার সর্বোত্তম উপায় হলো চুমুক দিয়ে পান করা। আমরা আমাদের মুখে প্রতিদিন প্রচুর পরিমাণে লালা উৎপন্ন করি। এই লালা আমাদের খাদ্য হজমে সহায়তা করে। গড়গড় করে পানি পান করলে আমাদের মুখের লালা পাকস্তলিতে গিয়ে ভালোভাবে কাজ করতে পারে না। তাই চুমুক দিয়ে পানি পান করাই সর্বোত্তম উপায়।

৪। হালকা গরম পানি পান করুন
ঠান্ডা পানি হজম প্রক্রিয়ায় বিষাক্ত প্রতিক্রিয়া তৈরি করে। এটা পান করার পরপরেই আমাদের পাকস্থলীতে ধাক্কা দেয়। খাদ্য খাবার পর পাকস্থলীতে গিয়ে এটা কিছুটা গরম হয়ে যায়। আর পেটের ভেতরে থাকা হালকা গড়ম খাবারে যদি ঠান্ডা পানি যায় তবে তা বিষক্রিয়া তৈরি করে। তাই আমদের হালকা গরম পানি পান করা উচিত। 

৫। অল্প মাত্রায় পানি পান 
অনেকেই পানি পান করার সময় অধিক মাত্রায় পানি পান করে ফেলে এবং এটা করতে গিয়ে গড় গড় করে পানি খান। এভাবে বেশী পরিমাণ পানি পান করলে শরীরে ভিতর চাপ বেরে যায়। ফলে শরীরের নানাবিধ ক্ষতির আশংকা তৈরি হয়। তাই আমাদের সবসময় অল্প অল্প পানি পান করা উচিত। 

আরো পড়ুনঃ

কোন খাবারে প্রোটিন বেশি

প্লাস্টিকের বোতল বারবার ব্যবহারে স্বাস্থ্য ঝুঁকি

সুস্থভাবে বেঁচে থাকার জন্য যে কাজগুলো করা দরকার

Related Articles

Back to top button