ত্বকের যত্নরূপচর্চালাইফস্টাইলসৌন্দর্য চর্চা

বলিরেখা দূর করার ঘরোয়া উপায়

বলিরেখা দূর করার উপায়

সময় খুব কেটে যাচ্ছে। দেখতে দেখতেই একটি বছর পার হয়ে যাচ্ছে। বছর যাওয়ার সাথে সাথে মানুষের বয়স ও বেড়ে যাচ্ছে। বয়সের সাথে সাথে মানুষের ত্বকের উপর ও প্রভাব পড়তে থাকে। ফলে মানুষের চেহারায় খুব পরিবর্তন আসে।

পুরুষেরা ত্বকের উপর উদাসীন থাকে। কিন্তু নারীরা ত্বকের ব্যাপারে সামান্য হলেও সচেতন। মোটামুটি ১৫-১৬ বছর বয়স হলেই নারীরা সৌন্দর্যের প্রতি সচেতন হয়ে পড়ে। তাই বয়সের ছাপ পড়লে তাদের কাছে মনে হয় তাদের সৌন্দর্য ফিকে হয়ে যাচ্ছে।

বয়সকে মানুষ যতই ইচ্ছা করুক না কেন ধরে রাখতে পারবে না কিন্তু যে জিনিসটা পারবে তা হচ্ছে বলিরেখা কমাতে। বলিরেখা হলে আমাদের ত্বক কুচকে যায় বা ত্বকের বিভিন্ন অংশে বলিরেখার ছাপ পড়তে দেখা যায়।

কিছুটা অনুশীলন, কিছু নিয়ম মানলে ও কিছুটা সচেতন হলে ও খাদ্যাভ্যাসের পরিবর্তন হলে আমরা আমাদের ত্বক থেকে বলিরেখা দূর করতে পারি।

বলিরেখাহীন সুন্দর, প্রাণবন্ত ও কোমল ত্বক পেতে আমাদেরকে কি করতে হবে চলুন দেখে আসি-

বলিরেখাহীন সুন্দর ত্বক পেতে অলিভ ওয়েল খুব ভালো কাজ করে। যেমন-

১. প্রতিদিন ঘুমানোর আগে অন্তত ৫ মিনিট অলিভ ওয়েল দিয়ে ম্যাসাজ করলে ত্বকের বলিরেখা দূর হয়ে যায়। ম্যাসাজ ত্বককে টানটান করে। যাদের তৈলাক্ত ত্বক তাদের জন্য ম্যাসাজ না করাই ভালো।

২. এক টেবিল চামচ অলিভ ওয়েলের সাথে কয়েক ফোটা ভিটামিন ই তেল মিশিয়ে মুখে ম্যাসাজ করলে বলিরেখা দূর হয়ে যায়। মুখে লাগিয়ে ১ ঘণ্টা অপেক্ষা করে ধুয়ে ফেলতে হবে। তাহলে ত্বকে বলিরেখা থাকবে না।

৩. বলিরেখা দূর করতে অলিভ ওয়েল ও চিনি দিয়ে স্ক্রাব করা যেতে পারে। দুই চা চামচ চিনির সাথে এক চামচ অলিভ ওয়েল মিশিয়ে পাঁচ মিনিট মুখে ম্যাসাজ করতে হবে। এর সাথে সামান্য মধু ও মেশানো যেতে পারে। তারপর পানি দিয়ে ভালো মতো ধুয়ে নিতে হবে।

৪. অলিভ ওয়েল ত্বকের আর্দ্রতা ধরে রাখে। এর সাথে যদি টমেটোর রস মেশানো হয় তাহলে এর কার্যক্ষমতা দ্বিগুণ হয়ে যায়। আধা চামচ অলিভ ওয়েলের সাথে দুই চামচ টমেটোর রস মিশিয়ে মুখে হালকা ম্যাসাজ করে ১০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলতে হবে। তাহলে বলিরেখা তো দূর হবেই পাশাপাশি ত্বকের লাবণ্যতা ফিরে আসবে।

৫. অলিভ ওয়েলের সাথে জোজোবা ওয়েল মিশিয়ে ত্বকের বলিরেখা দূর করা যায়। কয়েক ফোটা জোজোবা অয়েলের সাথে এক চা চামচ অলিভ ওয়েল মিশিয়ে ত্বকে ম্যাসাজ করতে হবে। কিছু সময় পর ধুয়ে নিলে ত্বকের বলিরেখা দূর হয়ে যায়।

এছাড়া আরো অনেক উপাদান দিয়ে ত্বকের বলিরেখা দূর করা যায়। যেমন-

১. চিনি ও মধু

চিনি প্রাকৃতিক এক্সফলিয়েট হিসাবে কাজ করে। চিনি মৃত ও শুষ্ক কোষ মেরে ফেলতে সাহায্য করে। এক টেবিল চামচ চিনির সাথে এক টেবিল চামচ মধু মিশিয়ে একটি মিশ্রণ তৈরী করে মুখে লাগাতে হবে। তারপর ১০ মিনিট রেখে পরিষ্কার পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলতে হবে। তাহলে বলিরেখা দূর হবে পাশাপাশি মধু লোমকূপের ময়লা ও দূর করতে সাহায্য করবে।

২. ডিম ও লেবুর রস

বয়সের সাথে ত্বক ঝুলে যায় ও ত্বকে বিভিন্ন ধরনের দাগ পড়তে পারে। ডিমে প্রোটিন থাকে যা ত্বক টানটান রাখতে সাহায্য করে ও লেবুর রস ত্বকের ছোপ ছোপ দাগ কমাতে সাহায্য করে।

একটি ডিম নিয়ে তার সাদা অংশ ও লেবুর রস মিশিয়ে প্যাক বানিয়ে নিতে হবে। তুলার সাহায্যে প্যাকটা খুব ভালো মতো ত্বকে লাগিয়ে নিতে হবে। ২০ মিনিট রেখে প্যাক ধুয়ে নিতে হবে। পরিষ্কার ঠান্ডা পানি ব্যবহার করতে হবে।

৩. কলা ও জলপাইয়ের তেল

ত্বকের বলিরেখার জন্য এই প্যাকটি খুব ভালো কাজ করে। কলাতে পটাশিয়াম, জিংক, ভিটামিন এ, বি, সি ও ই রয়েছে। এটি ত্বকের বলিরেখা কমায়। জলপায়ের তেল ত্বক প্রাকৃতিকভাবে নরম রাখে।

একটি কলা নিয়ে তাতে এক চা চামচ জলপায়ের চেল মিশিয়ে ১৫ মিনিট মুখে রেখে দিতে হবে। তারপর পরিষ্কার পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে নিতে হবে।

৪. অ্যাভোকাডো

অ্যাভোকাডোকে সুপার ফুড বলা হয়। এতে প্রচুর ফ্যাটি অ্যাসিড পাওয়া যায়। এটি ত্বকের বলিরেখা কমাতে সাহায্য করে। অ্যাভোকাডো ফলে পাল্প নিয়ে ভালো মতো পেস্ট করে ত্বকে লাগালে ত্বকের বলিরেখা দূর হয়ে যায়।

৫. ভিটামিন ই ক্যাপসুল

ভিটামিন ই ক্যাপসুল ব্যবহার করলে ত্বকের বলিরেখা কমে। এটি অ্যান্টি- অক্সিডেন্টের খুব ভালো উৎস। প্রতিদিন রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে ভিটামিন ই ক্যাপসুল ব্যবহার করলে ত্বকের বলিরেখা দূর হয়ে যায়।

৬. অ্যালোভেরা জেল

অ্যালোভেরা জেল ব্যবহার করলে ত্বকের বলিরেখা দূর করা যায়। অ্যালোভেরা জেলের সাথে ডিম মিশিয়ে আক্রান্ত স্থানে দিলে বলিরেখা নিমিষেই দূর হয়ে যায়।

৭. অ্যাপল সিডার ভিনেগার

অ্যাপল সিডার ভিনেগারে শক্তিশালী অ্যান্টি- অক্সিডেন্ট পাওয়া যায়। এটি ত্বকের সংক্রমণ দূর করতে সাহায্য করে। এক চামচ অ্যাপল সিডার ভিনেগার ও মধু পানির সাথে মিশিয়ে মুখে লাগাতে হবে। এটি ত্বকের বলিরেখা দূর করতে সাহায্য করে।

৮. মধু

মধু মূলত বহু রোগ নিরাময় করতে সাহায্য করে। প্রতিদিন বলিরেখার স্থানে মধু লাগালে খুব ভালো উপকার পাওয়া যায়। এই প্যাকটি ব্যাবহার করতে থাকলে নিমিষেই বলিরেখা দূর হবে।

৯. নারকেল তেল

নারকেল তেলে প্রচুর অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট পাওয়া যায়। তাই প্রতিদিন ত্বকে নারকেল তেল ম্যাসাজ করলে বলিরেখা দূর হয়ে যায়। রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে নারকেল তেল ব্যবহার করা ভালো।

১০. পেপে ও কলা

পেপে ও কলার মাস্ক ব্যবহার করে ১৫-২০ মিনিট পর পরিষ্কার পানি দিয়ে মুখ ধুতে হবে। কলাতে বার্ধক্য বিরোধী বৈশিষ্ট্য রয়েছে।তাই কলা ও পেপের মাস্ক বলিরেখা দূর করতে খুব ভালো সাহায্য করে।

আরো পড়ুনঃ

পুরুষের রূপচর্চা

ওয়েলি স্কিনের সারাবছরের যত্ন

ছোট সোনামণিদের ত্বকের যত্ন

বর্ষায় ত্বককে প্রাণবন্ত করার উপায়

ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করে যেসব খাবার

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
error: Content is protected !!

Adblock Detected

Please turn off your Adblocker.