আউটডোর প্ল্যান্টইনডোর প্ল্যান্টপ্ল্যান্টিং

মোজাইক রোগের লক্ষণ ও প্রতিকার

মোজাইক রোগের লক্ষণ ও প্রতিকার

মোজাইক ভাইরাস গাছপ্রেমীদের কাছে একটি পরিচিত নাম। এই ভাইরাস কিছু ফসলের যেমন টমেটো, মরিচ, বেগুন, কুমড়া, শসা, স্কোয়াশের ক্ষতি করে থাকে। এই ভাইরাসের বিভিন্ন ধরণ আছে। তাদের আবার রয়েছে নানা লক্ষণ।

লক্ষণঃ

মোজাইক ভাইরাসে আক্রান্ত গাছের পাতাগুলো দাগ পড়ে যায়। পাতা আকারে ছোট হয়ে যায় এবং পাতা অনিয়মিত হয়ে যায়। আক্রান্ত পাতাগুলোতে ইমালসনের দাগ তৈরী হয়। এই দাগগুলো সাধারণত কুমড়া প্রজাতির গাছের পাতা ও ফলে হয়ে থাকে। কচি পাতা সরু হয়ে কুচকে যায় ও খসখসে হয়ে যায়। অনেক সময় দেখা যায় ফলের চেহারা ও খারাপ হয়ে যাচ্ছে। এই রোগে আক্রান্ত পাতা গুলো সাধারণত বানরের পাজরের মতো আকার ধারণ করে। আক্রান্ত গাছপালা গুলো ছোট থাকে ও ফলন খুব কম হয়।

পাথরকুচি পাতার উপকারিতা ও অপকারিতা

যেভাবে রোগ ছড়ায়ঃ

বীজ থেকে রোগটি ছড়িয়ে পড়ে। লিফহপারস বা ছোট আকৃতির ফড়িং এই রোগ ছড়াতে সাহায্য করে। আবার জাব পোকা থেকেও এই রোগ ছড়াতে পারে। খামারে কর্মরত কৃষক, শ্রমিক ও খামারের কাজে ব্যবহৃত সরঞ্জাম থেকে এই রোগ ছড়াতে পারে। ইনডোর প্ল্যান্টের যত্ন

প্রতিকারঃ

সর্বদা রোগমুক্ত ও স্বাস্থ্যকর বীজ বপন করতে হবে। ক্ষতিগ্রস্থ গাছপালা উপড়ে ফেলতে হবে ও তাদের ধবংস করে ফেলতে হবে। রোগাক্রান্ত গাছপালা স্পর্শ করা যাবে না। খামারের আশেপাশে জড়ো করে রেখে পুড়িয়ে ফেলতে হবে। চাষের কাজে ব্যবহৃত সরঞ্জাম জীবাণূমুক্ত রাখতে হবে। এদেরকে চুলায় ১৫০ ডিগ্রী সেলসিয়াসে ঘণ্টা খানেক রেখে জীবাণুমুক্ত করতে হবে। তারপর ঠান্ডা করে ব্যবহার করতে হবে।

আরো পড়ুনঃ

ছাদ বাগান পরিচর্যা

গাছের জন্য ঘরোয়া উপায়ে সার তৈরী

কি দেখে গাছের চারা কিনবেন ?

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
error: Content is protected !!

Adblock Detected

Please turn off your Adblocker.