ত্বকের যত্নরূপচর্চালাইফস্টাইল

২০২১ সালে ত্বকের পরিচর্যার জন্যে যেসব উপকরণগুলি আরো জনপ্রিয় হয়ে উঠবে

ত্বক পরিচর্যার উপকরণ

ত্বকের পরিচর্যা অর্থে তাকে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখা, কোমল রাখাই মুখ্য উদ্দেশ্য। নিজের ক্ষেত্রে আমি একেবারে বেসিক জিনিসগুলি মেনে চলি, তাই সেই সম্পর্কিতই কয়েকটি জিনিসের কথা বললাম।

১। শুষ্ক ত্বকের ফেসওয়াশ:

মুখের ত্বকের পরিচর্যার জন্যে অবশ্য নিয়মিত করণীয় হলো ক্লেনজিং, টোনিং ও ময়শ্চারাইজিং। এরই সাথে সপ্তাহে দু’বার স্ক্রাবিং ও ফেসপ্যাক ব্যবহার উচিত। কিছুদিন আগেও ফেসওয়াশের তেমন একটা বৈচিত্র্যতা ছিল না, কিন্তু বর্তমানে অনেকরকম ফেসওয়াশই চোখে পড়ে। এটি বেশ ভালো ব্যাপার। বর্তমানে শুষ্ক ত্বক, তৈলাক্ত ত্বক, সংবেদনশীল ত্বক ইত্যাদির জন্য আলাদা আলাদা ফেসওয়াশ আছে। আসলে মুখ পরিষ্কার করার পর অধিকাংশ ফেসওয়াশই ব্যবহারের পর ত্বকে একটা শুষ্ক ভাব আনে, যাদের ত্বক এমনিতেই শুষ্ক তাদের এই শুষ্কতার অনুভূতিটা আরো প্রকট হয়। বর্তমানে অনেক ফেসওয়াশে উল্লেখ করা থাকে সোপ ফ্রি (soap free), কোনোটায় আবার লেখা থাকে ক্রিম বেসড (cream based)। এগুলোয় শুষ্কভাবটা হয় না। ২০২১ সালে ত্বকের পরিচর্যার জন্যে আমার মনে হয় এইরকম ফেসওয়াশ আরো বেশি জনপ্রিয় হবে, বিশেষ করে যাদের ত্বক শুষ্ক তাদের জন্য।

২। অ্যাকনে ফ্রি ফেসওয়াশ:

অ্যাকনে ফ্রি ফেসওয়াশ এর কদর অনেক, যার অধিকাংশই অল্পবয়সিদের মধ্যে। যদিও এটি আগেই জনপ্রিয় ছিল, ২০২১ সালে ত্বকের পরিচর্যার জন্যে বা ভবিষ্যতেও একইভাবে এর জনপ্রিয়তা বজায় থাকবে এবং বারবে।

৩। অ্যালকোহল ফ্রি টোনার:

টোনার সম্পর্কে আগে বেশিরভাগ লোকের তেমনকোনো ধারণাই ছিল না, অনেকে এগুলো ব্যবহারই করতো না। এখন অবস্থাটা অনেক বদলেছে। অ্যালকোহলযুক্ত টোনার ব্যবহার করলে শুষ্কতার অনুভূতি হয়। যতো বেশি শুষ্কতা, মুখে বলিরেখা পড়ার সম্ভাবনাও ততো বেশি থাকে। সেই কারণে বর্তমানে অ্যালকোহল ফ্রি টোনার বেশি জনপ্রিয়তা পাচ্ছে এবং ২০২১ সালে ত্বকের পরিচর্যার জন্যে এটার জনপ্রিয়তা বারবে।

৪। কোকোয়া বাটার ময়শ্চারাইজিং ক্রিম ও লোশন:

ত্বককে কোমল ও শুষ্ক রাখতে কোকোয়া বাটার খুবই উপকারী আর এই জাতীয় ক্রিমগুলির সুগন্ধও অত্যন্ত আকর্ষনীয়। ফেসিয়াল ক্রিম ও বডি লোশনের ক্ষেত্রে কোকোয়া বাটারের পরিচিতি দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে।

৫। SPF যুক্ত লিপবাম ও লিপস্টিক:

লিপবাম ও লিপস্টিক

সূর্যের অতিবেগুনি রশ্মি যে আমাদের ত্বকের জন্য যে কতোখানি ক্ষতিকর তা আমরা প্রায় সকলেরই জানি। একইভাবে এটি ক্ষতিকর আমাদের ঠোঁটের জন্যও। এই সম্পর্কে দিন দিন আমাদের মাঝে সচেতনতা বাড়ছে এবং লিপবাম ও লিপস্টিক কেনার সময় সেটি SPF যুক্ত কিনা সেদিকে খেয়াল রাখার প্রবণতাও বারছে।

৬। বডি ওয়াশ:

স্কিনকেয়ার বাজারে বার জাতীয় সাবানের সঙ্গে প্রতিযোগিতায় নেমেছে বডি ওয়াশ। বর্তমান প্রজন্মের অনেকে বার সাবান ব্যবহার করলেও বেশিরভাগের মধ্যেই বডি ওয়াশ বেশ জনপ্রিয়তা পাচ্ছে। বার সাবানে ক্ষারের আধিক্যের কারণে ত্বকে শুষ্কভাব বৃদ্ধি পায় যেটা বডি ওয়াশ ব্যবহার করলে হয় না।

৭। শীট মাস্ক:

শীট মাস্ক

এবার বলবো ত্বকের পরিচর্যার ক্ষেত্রে সবচাইতে জনপ্রিয় একটি জিনিসটির কথা। শীট মাস্ক, অত্যন্ত আরামদায়ক এবং ত্বকের জন্য খুবই উপকারী উপকরণ। এর কয়েকরকম প্রকারভেদ আছে যেমন– হাইড্রেটিং, ময়শ্চারাইজিং, সুদিং, ব্রাইটেনিং ইত্যাদি। আপনার যেটা পছন্দ সেটা কিনতে পারেন, এর সেটও পাওয়া যায়।

পরিশেষে বলবো, নিজের ত্বকের ধরণ অনুযায়ী ত্বক পরিচর্যার জন্যে সঠিক জিনিসটি ব্যবহার করুন এবং নিয়মিত যত্ন নিন ত্বকের। সাথে স্বাস্থ্যকর খাবার খান ও প্রচুর জল পান করুন। সুস্থ থাকুন, ভালো থাকুন।

আরো পড়ুনঃ

চুলকে স্বাস্থ্যবান রাখতে ভিটামিন

পানি দিয়ে রূপচর্চা

ভাতের মাড় দিয়ে রূপচর্চা

গরমকালে ড্রাই স্কিনের মেকআপ করার পদ্ধতি

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button
error: Content is protected !!

Adblock Detected

Please turn off your Adblocker.